উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তে সম্পূর্ণ ইন্টারনেট বন্ধ না করে সোশিয়াল মিডিয়া বন্ধ করুন-অতনু ভৌমিক।

Share

রাজ্য সরকারের প্রতি-

ইন্টারনেট ব্যবস্থাকে যদি আমরা সমুদ্রের সাথে তুলনা করি তবে তাতে সোস্যাল মিডিয়া হচ্ছে তার একটি ক্ষুদ্র অংশ মাত্র। ইন্টারনেট বলতে শুধুমাত্র সোস্যাল মিডিয়া বুঝায় না, এর পরিধি বিশাল।
বর্তমানে আমাদের রাজ্যে মোবাইল ইন্টারনেটের সাথে বহু মানুষের রোজগার, শিক্ষা, ডিজিটাল লেনদেন তথা দৈনন্দিন জীবন যাত্রার অগণিত প্রয়োজন জড়িত। সুতরাং, যদি রাজ্যের শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার স্বার্থে সরকারকে কোন পদক্ষেপ নিতে হয় তবে যেন শুধুমাত্র সোস্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিকেই (ফেইসবুক, ওয়াটসআপ, টুইটার ইত্যাদি ) ব্লক করা হয়। সামগ্রিক মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দিলে তাতে বহু মানুষকে যেমন আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় তেমনি বেসরকারি কাজের পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি কাজকর্মও বন্ধ হয়ে থাকে (বিশেষ করে গণবন্টন ব্যবস্থাগুলো)। তাছাড়া মাথায় রাখতে হবে, রাজ্যের মানুষের আর্থিক ক্ষতি কিন্তু আবশ্যই রাজ্যেরও আর্থিক ক্ষতি।


বর্তমানে জম্মু-কাশ্মীরের পাশাপাশি বিভিন্ন রাজ্যে কোন প্রকার সমস্যা দেখা দিলে কিংবা সমস্যা সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা থাকলে শুধুমাত্র সোস্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিকেই ব্লক করা হয়, এর বাইরে অন্যান্য মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা সচল থাকে।
সুতরাং, রাজ্য সরকারের কোন প্রতিনিধি যদি আমার এই পোস্টটি দেখে থাকেন তবে তাদের প্রতি বিনম্র অনুরোধ থাকবে, রাজ্য তথা রাজ্যের মানুষের স্বার্থের কথা চিন্তা করে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে সামগ্রিক মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবাকে বন্ধ না করে যেন শুধুমাত্র সোস্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিকেই ব্লক করার বিষয়টিকে গুরুত্বতার সহিত বিবেচনা করা হয়। ধন্যবাদ।

( এটি রাজনৈতিক পোস্ট নয়, সুতরাং কেউ কমেন্ট করতে চাইলে রাজনৈতিক কমেন্ট না করে যুক্তিসঙ্গত কমেন্ট করুন)

Leave a Reply