হিন্দুশূন্য মিজোরাম

Share

সৌজন্যে- রিপন নাথ।

মিজোরাম উওর পূর্ব ভারতের একটি পাহাড়ি রাজ্য , এই রাজ্য 21 হাজার বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে গঠিত, জনসংখ্যা প্রায় 12 লক্ষ , মোট জনসংখ্যার প্রায় 95% উপজাতি সম্প্রদায়ভুক্ত । এই রাজ্য মূলত খ্রিস্টান প্রধান মোট জনসংখ্যার প্রায় 87%, দ্বিতীয় স্থানে আছে বৌদ্ধ প্রায় 8.5% ও তৃতীয়ত স্থানে আছে হিন্দু প্রায় 2.5% , তাছাড়া আছে মুসলিম, শিখ, জৈন , ইহুদী ও অন্যান্য কিছু ছোট ছোট ধর্ম ।
মিজোরাম ভারতের হিন্দু সংখ্যালঘু রাজ্যগুলির মধ্যে একটি ও উওর পূর্ব ভারতের হিন্দু শূন্য একটি অঞ্চল । 1951 সালে জনগণায় এই রাজ্যের মোট জনসংখ্যার 6% ছিল হিন্দু, কিন্তু 1990 এর পর থেকে সেখানকার দুই উপজাতি জনগোষ্ঠী মিজো ও রিয়াং এর মধ্যে দাঙ্গা বাধার কারণে বেশিরভাগ রিয়াং সম্প্রদায় পার্শ্ববত্তী রাজ্য ত্রিপুরার কাঞ্চনপুর ও তাঁর আশেপাশে চলে আসে, ফলে মিজোরাম প্রায় রিয়াং শূন্য হয়ে যায় এবং এরাই ছিল সেখানকার মূল হিন্দু । 2001 সালে মিজোরামে 5 হাজার রিয়াং হিন্দু ছিল, কিন্তু বর্তমানে তাঁদের সংখ্যা 2 থেকে 3 হাজার । যা আছে তাদেরকেও মিশনারিরা খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরিত করছে ।
বর্তমানে মিজোরামে যেসব হিন্দু আছে তাঁরা মূলত নেপালী, বাঙালি , মণিপুরী , অসমীয়া ও হিন্দীভাষী হিন্দু যাদের সংখ্যা 25 থেকে 30 হাজার । মিজোরাম এর চাকমা জনজাতি অর্থাৎ বৌদ্ধদেরও অবস্থা বেশি ভালো নয় । মিজোরাম রাজ্যের জেলাসমূহের হিন্দুদের সংখ্যা :-
1) আইজল – 03%
2) চাম্ফাই – 0.7%
3) কোলাসিব – 04%
4) লংৎলাই – 01%
5) মামিত – 03%
6) লংলেই – 03%
7) সাইহা – 1.5%
8) সেরছিপ – 1.5%
এই সংখ্যা কিন্ত দ্রুত গতিতে কমছে, এইভাবে চলতে থাকলে 2050 সালে মিজোরামে হিন্দুদের সংখ্যা 1% বা এর নিচে চলে আসবে ।

Leave a Reply