পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে দুই হিন্দু তরুণীকে অপহরণ করে ইসলামে ধর্মান্তকরণ।

Share

নামধারী মানবতা সেক্যুলারগণ একবার কি পাকিস্তানের হিন্দুদের খোঁজ নিয়েছেন । নাকি খোঁজ নিলে সাম্প্রদায়িক হয়ে যাবেন সেই ভয়ে খোঁজ নেন না । আছেন শুধু মুসলিম কোথায় কোথায় নির্যাতিত হয়েছে সেটা নিয়ে প্রতিবাদ করতে মানবতার নাম চটাতে ।সেকু্্যলার হিন্দুরা বাংলাদেশ পাকিস্তানের হিন্দুদের যে অত্যাচার হচ্ছে সেটা নিয়ে প্রতিবাদ পোস্ট করতে দেখি নি । পোস্ট করতে গিয়ে যদি তারা সাম্প্রদায়িক হয়ে যায় । নিউজিল্যান্ড নিয়ে অনেক সেক্যুলার হিন্দুদের পোস্টে প্রতিবাদ করতে দেখেছি , বড় বড় মানবতা নিয়ে কথা বলতে দেখেছি ।
✍✍✍✍✍✍✍✍✍✍

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে দুই হিন্দু তরুণীকে অপহরণ করে ইসলামে ধর্মান্তকরণ, বিক্ষোভ হিন্দুদের

মুসলিম প্রধান দেশে সংখ্যালঘু হিন্দুদের কিভাবে দিন কাটাতে হয় , তার উদাহরণ পাকিস্তান। হোলির দিন পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের দুই বোনকে অপহরণ করলো মুসলিমরা। তারা হলো রিনা মেঘওয়ার এবং রবিনা মেঘওয়ার ।তাদের বাড়ি সিন্ধু প্রদেশের ঘোটকি জেলার দাহেরকি গ্রামে। পুরো গ্রাম যখন হোলির আনন্দে মাতোয়ারা, সেইসময় মালিক সম্প্রদায়ের মুসলিমরা ওই দুই বোনকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। তারপর তাদেরকে ইসলামে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করে মুসলিমরা। এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পর হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভ ছড়ায়। তারা দলবদ্ধভাবে থানায় অভিযোগ জানাতে গেলেও পুলিস অভিযোগ নেয়নি। তখন তারা সিন্ধু প্রদেশের একমাত্র হিন্দু এমপি নন্দ কুমার গোকলানিকে বিষয়টি জানান। কিন্তু তার পরেও পুলিস গুরুত্ব দেয়নি। কারণ পাকিস্তানে হিন্দু মেয়েদের অপহরণ করে ধর্মান্তরিত করার বিরুদ্ধে এখনো পর্যন্ত কোনো আইন নেই। ২০১৬ সালে আইন পেশ হলেও এখনো পাস হয়নি। এমতবস্থায় সমস্ত হিন্দু পঞ্চায়েতের বাসিন্দারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত ওই দুই হিন্দু তরুণীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।
Collected
হিন্দু সংহতি

Leave a Reply