নারীশক্তি জয়গান- ভাস্কর নন্দন সরকার।

Share

বাবা বাসের খালাসির কাজ করতেন।অর্থাৎ বাস কন্ডাক্টর ৷ মা বা বাবা কেউই খুব বেশি দূর অবদি পড়েননি। তবে কোনও বাধাই দমিয়ে রাখতে পারেনি তাকে ৷ #খুশবু_কুঁয়র। ৩০ বছর ৷

প্রথম মহিলা হিসেবে ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথে ‘অসম রাইফেলস’-এর হয়ে সেনা কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দিয়েছেন ৷   হাজার প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়াই করে ২০১২ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন খুশবু। #অসম_রাইফেলস-এর মহিলা বাহিনীর হয়ে একাধিক জঙ্গি দমন অভিযানেও অংশ নিয়েছিলেন।

বিবাহিত তিনি ৷ অবশ্যই মা- জননী ৷ #নারীশক্তি ৷ স্বামীর ঘরে শুধু সন্তানদের নিয়েই ছিলোনা সংসার ৷ দেশ সেবাকেই যে ব্রত করে নিয়েছিলেন ৷ দেশের সমগ্র অংশের লড়াকু মানুষের কাছে আজ তিনি #লিভিং_এক্সজাম্পল ৷

লড়াই এ হার মানেননি বলেই যে আজ তিনি খবরে ৷ এটাও জানেন যে এ দেশে হাজারো মেয়ে আছেন যাদেরকে প্রতিদিন লড়তে হচ্ছে- পরিস্থিতির সঙ্গে ৷সেগুলি অবশ্যই প্রতিকূল ৷ তাঁদের উদ্দেশ্যে তিনি বললেন, ‘‘বাসের খালাসির মেয়ে হয়ে আমি যদি পারি, তা হলে সব মেয়েই পারবে তাদের স্বপ্নকে ছুঁতে।’’

রাজধানীতে অনুষ্ঠিত ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান জুড়েই ছিল নারীশক্তির #জয়জয়কার। সেনা কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দিলেন অসম রাইফেলস-এর মহিলারা। সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কুচকাওয়াজেও মহিলারাই ছিলেন সামনের সারিতে। প্রথম মহিলা হিসেবে বাইক নিয়ে নানা কসরত দেখিয়েছেন ক্যাপ্টেন #শিখা_সুরভি।

জয়পুর ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড রিসার্চ ইনস্টিউট থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে বিটেক করে লড়াই শুরু করেন ভারতীয় সেনা বাহিনীতে যোগ দিতে শিক্ষাক্ষেত্রে #অসাধারণ_পারফরমেন্সের জন্য ইউনিভার্সিটি এন্ট্রি স্কীমে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এসএসবির সাক্ষাতকারের জন্য নির্বাচিত হন ৷

বিহারে জন্ম নেয়া এই আর্মি অফিসার ১৫বছর বয়সেই বুলেট বাইক চালানো শিখে নিয়েছিলেন ৷ তাঁর মধ্যে #স্টান্ট নেবার অসাধারণ ক্ষমতা দেখেই অফিসাররা তাঁকে #ডেয়ার_ডেভিলসে অন্তর্ভুক্ত করেন ৷ ৩৫০সিসি রয়াল এনফিল্ড বাইক চালানোতেই তাঁর আনন্দ ৷

ডেয়ারডেভিলস টিমকে নেতৃৃৃৃত্ব দেয়াটাও এতোটা সহজ ছিলোনা ৷ বিগত তিন মাস ধরে প্রতিদিন ভোর ৩টা ১৫মিনিট থেকে শুরু হতো ঘাম ঝরানো রিহার্সাল ৷
এতোটাই কমিটেড ছিলেন এই প্যারেডে অংশ নেবার জন্য যে গত ডিসেম্বর মাসে দিন তারিখ ঠিক হলেও প্রেমিককে(তিনিও ইন্ডিয়ান আর্মির ক্যাপ্টেন) রাজি করিয়ে নিজেদের বিয়ের তারিখ পিছিয়ে এ বছরের মে মাসে নিয়ে গিয়েছেন ৷
#ক্যাপ্টেনশিখাসুরভি ৷ বয়স ২৮ ৷ ২০১৫ সালে ইন্ডিয়ান আর্মিতে কমিশণড অফিসার হয়ে যোগ দেন ৷ বর্তমানে ভাটিন্ডাতে পোস্টিং ৷ ডেয়ার ডেভিলস টিমের #একমাত্রমহিলাসদস্যা ৷
এমন গৌরবময় মুহুর্তেও নেই কোন অহংকার ৷আছে শুধু দেশকে সেবা করে যাবার পন ৷ তাইতো তিনি বলছেন, ” … I can say that if someone asks me to do something for the nation, then I will be the first person to die for the country.”
সত্যি দেশকে গর্বিত করছে মেয়েরা ৷
Salute to u #GIRLS- the fighters ! The Nation is proud of you …
জয় হিন্দ !!!

Leave a Reply